সহকারী জজ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি । বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস (১৫শ বিজেএস) নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস (১৫শ বিজেএস) সহকারী জজ পদে নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিসের প্রবেশ পদ অর্থাৎ সহকারী জজ পদে নিয়ােগের লক্ষ্যে প্রতিযােগিতামূলক পরীক্ষার মাধ্যমে উপযুক্ত প্রার্থী বাছাই এর উদ্দেশ্যে নিম্নবর্ণিত তথ্যাদি অনুসারে অনলাইনে নির্ধারিত ফরমে আবেদনপত্র আহ্বান করা হচ্ছে।




সহকারী জজ পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

পদ সম্পর্কে জ্ঞাতব্য বিষয়সমূহ

পদ সংখ্যাঃ

১০০ (একশত) টি। (বিধি অনুযায়ী পদ সংখ্যা হ্রাস বা বৃদ্ধি হতে পারে)।

 

বেতন স্কেলঃ

টাকা ৩০৯৩৫-৩২৪৯০-৩৪১২০-৩৫৮৩০-৩৭৬৩০-৩৯৫২০-৪১৫০০-৪৩৫৮০-৪৫৭৬০-৪৮০৫০-৫০৪৬০-৫২৯৯০-৫৫৬৪০৫৮৪৩০-৬১৩৬০-৬৪৪৩০ তৎসহ বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস বেতন স্কেল, ২০১৬-এ বর্ণিত ও সরকারি সিদ্ধান্ত অনুসারে প্রদত্ত অন্যান্য সুবিধাদি।

বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

সহকারী জজ পদে অনলাইনে আবেদনপত্র পূরণ ও জমাদান শুরু ও শেষ হওয়ার তারিখ ও সময়

  • আবেদনপত্র পূরণ ও জমাদান শুরুর তারিখ ও সময়ঃ ১৮/০৫/২০২২ খ্রিস্টাব্দ তারিখ মধ্যাহ্ন-১২.০০ ঘটিকা।
  • আবেদনপত্র জমাদানের শেষ তারিখ ও সময়ঃ ১২/০৬/২০২২ খ্রিস্টাব্দ তারিখ রাত-১১.৫৯ ঘটিকা।

নির্ধারিত তারিখ ও সময়ের পর কোনাে আবেদনপত্র গ্রহণ করা হবে না।

বি. দ্র. শেষ তারিখ ও সময়ের জন্য অপেক্ষা না করে যথেষ্ট সময় নিয়ে আবেদনপত্র জমাদান চুড়ান্ত করতে পরামর্শ দেওয়া যাচ্ছে।

 

প্রার্থীর বয়স

০১ জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিঃ তারিখে অনধিক ৩২ (বত্রিশ) বছর। (মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট অথবা সমমানের পরীক্ষার মূল সনদপত্র অনুযায়ী বয়স নির্ধারিত হবে।)

প্রার্থীর বয়স বেশি হলে আবেদনপত্র গ্রহণযােগ্য হবে না। বয়স নির্ধারণের ক্ষেত্রে এফিডেভিট গ্রহণযােগ্য হবে না।




সহকারী জজ পদে প্রার্থীর শিক্ষাগত যােগ্যতা

ন্যূনতম যােগ্যতা

কোনাে স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হতে আইন বিষয়ে ৪ (চার) বৎসর মেয়াদি স্নাতক (সম্মান) অথবা আইন বিষয়ে স্নাতক অথবা কোনাে স্বীকৃত বিদেশী বিশ্ববিদ্যালয় হতে আইন বিষয়ে ৩ (তিন) বৎসর মেয়াদি স্নাতকসহ স্নাতকোত্তর ডিগ্রীধারী হন

তবে শর্ত থাকে যে, উক্ত ব্যক্তিকে আইন বিষয়ে স্নাতক বা স্নাতক (সম্মান) বা, ক্ষেত্রমত, আইন বিষয়ে স্নাতকোত্তর স্তরে দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমমানের সিজিপিএ প্রাপ্ত হতে হবে। উক্ত পরীক্ষায় অবতীর্ণ প্রার্থীও উপ-অনুচ্ছেদ (গ) তে উল্লিখিত শর্তে আবেদন করতে পারবেন।

 

সিজিপিএ মূল্যায়ন পদ্ধতি

কোনাে প্রার্থীর ফলাফল উক্তরূপ শ্রেণির পরিবর্তে সিজিপিএ আকারে প্রকাশিত থাকলে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রদত্ত সনদে উল্লিখিত স্কেল (যেমন-৪ বা ৫) কে প্রচলিত নম্বর পদ্ধতিতে ৮০% এর সমান ধরা হবে। তদানুসারে প্রার্থীর ফলাফলকে প্রথম শ্রেণি (৬০% বা তদূর্ধ্ব), দ্বিতীয় শ্রেণি (৪৫% বা তদূর্ধ্ব কিন্তু ৬০% এর কম), তৃতীয় শ্রেণি (৩৩% বা তদূর্ধ্ব কিন্তু ৪৫% এর কম) হিসেবে নির্ধারণ করা হবে।

এতউদ্দেশ্যে নিম্নবর্ণিত সূত্র অনুসরণ করা হবে ।

সহকারী জজ পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

এ বিষয়ে বিস্তারিত বিবরণ কমিশনের ওয়েব সাইটে প্রকাশিত “তথ্য, নির্দেশনা ও বিস্তারিত সিলেবাস” নামীয় পুস্তিকার প্রথম অধ্যায়ের ২ নং অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে। * কোনাে ক্ষেত্রে উক্ত পুস্তিকার নির্দেশনা অনুসারে শিক্ষাগত যােগ্যতা নির্ধারণ সম্ভব না হলে কমিশন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।

 

পরীক্ষায় অবতীর্ণ প্রার্থী

আইন বিষয়ে স্নাতক অথবা স্নাতক (সম্মান) অথবা ক্ষেত্রমতে স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় অবতীর্ণ কোনাে প্রার্থী আবেদনপত্র দাখিল করতে পারবেন। তবে উক্ত পরীক্ষা আবেদনপত্র দাখিলের শেষ তারিখে বা তৎপূর্বে শেষ হতে হবে।

 

প্রার্থীর শারীরিক যােগ্যতা

সহকারী জজ পদের দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে পালনের জন্য প্রার্থীকে শারীরিকভাবে সক্ষম হতে হবে। উক্ত দায়িত্ব পালনে বাধা হয় এরূপ দৈহিক বৈকল্য আছে কি-না তা যাচাই এবং প্রত্যয়নের নিমিত্ত প্রার্থীকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক গঠিত মেডিকেল বাের্ড অথবা মনােনীত মেডিকেল অফিসারের সম্মুখে উপস্থিত হতে হবে। শারীরিক যােগ্যতাসমূহের বিস্তারিত বিবরণ কমিশনের ওয়েব সাইটে প্রকাশিত “তথ্য, নির্দেশনা ও বিস্তারিত সিলেবাস” নামীয় পুস্তিকার প্রথম অধ্যায়ের ২০ নং অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে।

 

প্রার্থীর জাতীয়তা

প্রার্থীকে বাংলাদেশের নাগরিক অথবা বাংলাদেশের স্থায়ী বাসিন্দা অথবা বাংলাদেশে Domiciled হতে হবে। কিন্তু প্রার্থী যদি এমন কোনাে ব্যক্তিকে বিবাহ করেন অথবা বিবাহ করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হন, যিনি বাংলাদেশের নাগরিক নন, তাহলে তিনি অযােগ্য বলে বিবেচিত হবেন।

 

অপসারণ আদেশ/ইস্তফাপত্র/অনাপত্তিপত্র/ছাড়পত্র

সরকারি অফিস বা স্থানীয় কর্তৃপক্ষ অর্থাৎ সংবিধিবদ্ধ সংস্থা, স্বায়ত্তশাসিত বা আধা-সরকারি সংস্থায় চাকুরিরত প্রার্থীদের নিয়ােগকারী কর্তৃপক্ষের/যথাযথ কর্তৃপক্ষের সিল-স্বাক্ষরযুক্তে অনাপত্তিপত্র ও চাকুরি হতে অপসারিত (Removed) হয়েছেন অথবা চাকুরি হতে ইস্তফা দিয়েছেন এমন প্রার্থীদের চাকুরি হতে অপসারণের আদেশ বা ইস্তফাপত্র নিয়ােগকারী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক গৃহীত হওয়ার আদেশ সংগ্রহ করতে হবে।




সহকারী জজ পদে পরীক্ষার ধরন ও পাস নম্বর

প্রাথমিক পরীক্ষা

সকল প্রার্থীকে ১০০ নম্বরের MCQ (Multiple Choice Question) পদ্ধতিতে প্রাথমিক পরীক্ষায় (Preliminary Examination) অবতীর্ণ হতে হবে। উক্ত পরীক্ষায় মােট ১০০ টি MCQ থাকবে। প্রতিটি MCQ এর মান হবে ১ (এক) নম্বর। তবে প্রতিটি MCQ এর ভুল উত্তরের জন্যে ০.২৫ নম্বর কর্তন করা হবে। সকল প্রার্থীকেই লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের প্রাক যােগ্যতা হিসাবে প্রাথমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। প্রাথমিক পরীক্ষায় ন্যূনতম পাস নম্বর ৫০।

প্রাথমিক পরীক্ষায় সাধারণ বাংলা, সাধারণ ইংরেজি, বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়সমূহ, সাধারণ গণিত, দৈনন্দিন বিজ্ঞান, বুদ্ধিমত্তা এবং আইন বিষয়সমূহের উপর প্রশ্ন করা হবে। প্রাথমিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর কোনাে প্রার্থীর লিখিত বা মৌখিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের সাথে যােগ করা হবে না। এ পরীক্ষা সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য কমিশনের ওয়েব সাইটে প্রকাশিত “তথ্য, নির্দেশনা ও বিস্তারিত সিলেবাস নামীয় পুস্তিকার প্রথম অধ্যায়ের ১৩ নং অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে।

 

লিখিত পরীক্ষা

১৫শ বিজেএস পরীক্ষা, ২০২২ এ ১০০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। যে সকল পরীক্ষার্থী প্রাথমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবেন শুধু তারাই লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। গড়ে ৫০% নম্বর পেলে একজন পরীক্ষার্থী লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন বলে গণ্য হবেন। কোনাে পরীক্ষার্থী কোনাে বিষয়ে ৩০ নম্বরের কম পেলে তিনি লিখিত পরীক্ষায় অকৃতকার্য বলে গণ্য হবেন। এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য কমিশনের ওয়েব সাইটে প্রকাশিত “তথ্য, নির্দেশনা ও বিস্তারিত সিলেবাস” নামীয় পুস্তিকার প্রথম অধ্যায়ের ১৪—১৭ নং অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে।

 

মৌখিক পরীক্ষা

লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদেরকে ১০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। মৌখিক পরীক্ষার পাস নম্বর ৫০। এ সংক্রান্ত বিস্তারিত নির্দেশনা “তথ্য, নির্দেশনা ও বিস্তারিত সিলেবাস” নামীয় পুস্তিকার ১৯ নং অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে।

বি. দ্র. শুধু লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীগণ মৌখিক পরীক্ষায় অবতীর্ণ হওয়ার সুযােগ পাবেন।

বিজেএস পরীক্ষা একটি প্রতিযােগিতামূলক পরীক্ষা বিধায় ন্যূনতম পাস নম্বর প্রাপ্তি কমিশন কর্তৃক সুপারিশের নিশ্চয়তা প্রদান করে না।

 

সহকারী জজ পদে পরীক্ষার সময়সূচি

প্রাথমিক, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার কেন্দ্র এবং সময়সূচি কমিশনের ওয়েবসাইটসহ বহুল প্রচারিত দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি মারফত জানানাে হবে। ১৫শ বিজেএস পরীক্ষা, ২০২২ এর

 

সহকারী জজ পদে আবেদনের নিয়মাবলী

প্রার্থীকে বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস কমিশনের ওয়েবসাইট www.bjsc.gov.bd এর মাধ্যমে কমিশন কর্তৃক নির্ধারিত BJSC Form পূরণ করে Online Registration কার্যক্রম এবং ফি জমাদান সম্পন্ন করতে হবে।

অথবা, Apply Now বাটনে ক্লিক করে সরাসরি আবেদন করতে পারবেন।

 

পরীক্ষার ফি প্রদান

  • পরীক্ষার ফি প্রদানের শুরুর তারিখ ও সময়ঃ ১৮/০৫/২০২২ খ্রিস্টাব্দ তারিখ মধ্যাহ্ন-১২.০০ ঘটিকা।
  • পরীক্ষার ফি প্রদানের শেষ তারিখ ও সময়ঃ ১৪/০৬/২০২২ খ্রিস্টাব্দ তারিখ রাত-১১.৫৯ ঘটিকা।

নির্ধারিত সময়ের পর পরীক্ষার ফি জমা দেওয়া যাবে না।




সহকারী জজ পদে বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

সহকারী জজ পদে বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২




সহকারী জজ পদে বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

Leave a Reply